ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার গ্রামীণ রাস্তার বেহাল দশা

এসএম আরিফুল ইসলাম জিমন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার অধিকাংশ ওয়ার্ডের গ্রামের রাস্তার বেহাল দশা, দেখার কেউ নেই!

জানা যায়, ২০০৫ সালে ঘোড়াঘাট পৌরসভার যাত্রা শুরু হলেও এ দীর্ঘ সময়ে অধিকাংশ ওয়ার্ড গুলোতে এখন পর্যন্ত উন্নয়নের ছোঁয়া পায়নি। বিশেষ করে পৌর এলাকার ওসমানপুর কলেজপাড়ার রাস্তার বেহাল দশায় এ গ্রামের বাসিন্দারা দীর্ঘদিন থেকে চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছেন। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ কমিশনার কিংবা মেয়রের তেমন কোন দৃষ্টি নেই এসব এলাকায়!

সরেজমিনে দেখা যায়, একটু বৃষ্টিতেই পানি জমে সয়লাব হয়ে যায় গ্রামের ভেতরের অলি-গলি। ঘোড়াঘাট সরকারি কলেজ ঘিরেই কলেজপাড়া গ্রাম হওয়ায় অনেকের যাওয়া আসা এই গ্রামে কিন্তুু রাস্তার বেহাল দশার কারনে অনেকটাই নাজেহাল গ্রামবাসী সহ ভুক্তভোগী জনসাধারণ। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের জন্য ব্যবহৃত হয় ঘোড়াঘাট সরকারী কলেজ মসজিদটি, যেখানে আসতে হলে কাঁদা, ময়লা আবর্জনা যুক্ত রাস্তা পার করে মসজিদে প্রবেশ করতে হয় আবার কেউবা রাস্তা পিচ্ছিল থাকার কারণে পরে গিয়ে আঘাত প্রাপ্ত হয়। যেদিন বৃষ্টি হয় সেদিন অনেকেই জামাতে নামাজ পর্যন্ত আদায় করতে পারে না। এমনকি এ মসজিদে জুম্মার নামাজ থেকেও বঞ্চিত হয় অনেকেই!

ওসমানপুর কলেজপাড়া গ্রামের বাসিন্দা নজরুল ইসলাম, বকুল, শাহাদৎ, মতিন সারোয়ার, বেলাল, ময়নুল, মোস্তাফিজুর, সোহেল, শফিকুল, নুরু, সাইফুল, আরিফুল, জাহিদ সহ অনেকে অভিযোগ করে বলেন বহুদিন থেকে ওয়ার্ড কমিশনার কিংবা মেয়রকে খবর জানালেও তারা কোনদিন আসেননি এমনকি কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি! গ্রামবাসীদের কে খুব কষ্ট করে এত খারাপ রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে হয়। এদিকে কমিশনার কিংবা মেয়রের কোন খবর নেই! শুধু ভোটের সময় অনেকেই দেখতে পাওয়া যায়। গ্রামের বাসিন্দারা আরও জানান, গ্রামের সমস্যাগুলো অতীত থেকে বর্তমান পর্যন্ত নিজেরাই সমাধান করে আসছি কিন্তুু এভাবে আর কতদিন?

এ বিষয়ে পৌর মেয়রসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে রাস্তার দ্রুত মেরামতের জোর দাবি জানিয়েছেন গ্রামবাসীসহ ভুক্তভোগী জনসাধারণ।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

     এই ধরনের আরও খবর

ফেসবুক

পুরাতন খবর খুঁজুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০