ভালুকায় সেচ্ছাসেবীদের দাবি মেনে উপজেলা সরকারি হাসপাতালে ব্লাড ট্রান্সফিউশন চালু – গ্রামীন নিউজ২৪ টিভি

মোঃ নাজমুল ইসলাম, ভালুকা প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ভালুকায় সেচ্ছায় রক্তদানে ব্লাড ডোনার্স সোসাইটি ভালুুকা সংগঠনটির সময়ের দাবি ছিল বিগত ককয়েকদিন ধরে সোসাল মিডিয়ায় থ্যালেসেমিয়া রোগিরা প্রতি মাসে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে প্রাইভেট ক্লিনিক গুলোতে ব্লাড ট্রান্সফিউশন করতে হিমশিম খেতে হয় এবং এ রোগে আক্রান্ত অধিকাংশ রোগিদের পারিবারিক অসচ্ছলতার কারনে জীবন বাঁচাতে নানা ধরনের বেগ পোহাতে হয়। যেহেতু ভালুকায় থ্যালেসেমিয়া আক্রান্ত রোগির সংখ্যা অনেক বেশি এবং বেসকারি ক্লিনিকে ব্লাড ট্রান্সফিউশন অধিক ব্যয়বহুল সেজন্য রোগিদের কথা চিন্তা করে ব্লাড ট্রান্সফিউশন ভালুকা উপজেলা সরকারি হাসপাতালে করানোর ব্যবস্থা গ্রহনে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

সেচ্ছাসেবী সংগঠনের যৌক্তিক দাবি অসহায় থ্যালেসেমিয়া রোগিদের কথা চিন্তা করে ১৭ই আগষ্ট থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ব্লাড ট্রান্সফিউশন চালু করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতা ডাক্তার সোহেলী শারমিন মিতা।


১৭ ই আগষ্ট সেচ্ছাসেবী সংগঠন ব্লাড ডোনার্স সোসাইটি ভালুকার পক্ষ থেকে উপজেলা সরকারি হাসপাতালে ব্লাড ট্রান্সফিউশনের দাবি পূরণ এবং দ্রুত বাস্তবায়ন করার জন্য একজন রোগিকে ব্লাড ডোনেট করেছে ব্লাড ডোনার্স সোসাইটি ভালুকার সহ-সভাপতি ছারোয়ার আহম্মেদ অপু। এসময় উপস্থিত ছিলেন ডাক্তার সোহেলী শারমিন মিতা, সেচ্ছাসেবী সংগঠন ব্লাড ডোনার্স সোসাইটি ভালুকার সভাপতি এস এম ফিরোজ আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহম্মেদ টুটুল, সহ-সভাপতি শ্রী বিপুল মন্ডল, সহ-নারী ও শিশু বিষয়ক সম্পাদিকা নওরিন, রিদয় হাসান মন্ডল প্রমুখ

ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতা ডাক্তার সোহেলী শারমিন মিতা জানান, ভালুকার থ্যালাসেমিয়া রোগীরা অতি অল্প খরচে এখন থেকে প্রতিদিনই উপজেলা সরকারি হাসপাতালে ব্লাড ট্রান্সফিউশন করাতে পারবে। প্রাইভেট ক্লিনিক বর্জন করুন অল্প খরচে ব্লাড ট্রান্সসফিউশন করুন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে। সামনে এ কার্যকম আরও উন্নত করা হবে।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

     এই ধরনের আরও খবর

ফেসবুক

পুরাতন খবর খুঁজুন