শেরপুরে সুদের টাকা না পেয়ে পিটিয়ে ক্ষত বিক্ষত করা হয়েছে জামিনদার কে – গ্রামীন নিউজ২৪ টিভি

শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুর সদর উপজেলার ৮নং লছমনপুর ইউনিয়নের বড় ঝায়ের চর জৈনেক এক সমিতি নামে সুদের ব্যবসা শুরু করে । এরা গ্রামে বিভিন্ন অসহায় মানুষদের টার্গেট করে ১০/১৫% হারে মাসে সুদে টাকা দেয় ।

এরা ১০/১৫ মিলে এ-ব্যাবসাটা চালিয়ে যায় । এরা টাকা দেয় , কারো থাকার ঘর লিখে নিয়ে আবার জমি বন্ধকী নামে ৩শত টাকা ষ্ট্যাম্পে লিখে নেয় । আর না হয় জামিনদার হলে টাকা দেয় । এ-রকমই ঘটনা ঘটে , ৮নং লছমনপুর ইউনিয়নের বড় ঝায়েরচর গ্রামে ।

২২ আগষ্ঠ শনিবার সকাল ৮টার সময় কৃষক সেলিম মিয়া কাজে বের হয়ে নদীর পারের দিকে যাওয়ার পথে সমিতির ৫/৬ জন সদস্য চেইন , লাঠি দিয়ে এলোপাতারি আঘাত করে এবং শাবুল দিয়ে দু-হাতে কেচা দিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে ফেলে রেখে যায় ।

বর্তমানে শেরপুর জেলা হাসপাতালে ভর্তি । অবস্থা সংকটাপন্ন । শেরপুর সদর হসপিটাল থেকে রেফার্ড ও করেছেন । ঘটনার পর সকাল সারে ৯টার দিকে শেরপুর সদর থানায় নিয়ে গেলে কর্তব্য-রত পলিশ জেলা হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন।আহত সেলিমের বড় ভাই আরিফ হোসেন এ সব জানান । তবে এখনো ঘটনার জন্য কোন মামলা হয়নি ।
আরিফ সেলিমের বড় ভাই আরো জানান, আমি ভাই কে নিয়ে ময়মনসিংহ হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছি । আমার ভাই্ একজন কৃষক, সে অত্যান্ত নিরহ এবং ভাল মানুষ । তাকে একজন জিামিন দার বানিয়ে তাদের সমিতি থেকে কিছু টাকা নিয়েছে । সময়-মত দিতে পারেনি বলে তারা আমার ছোট ভাই কে পটিয়ে ক্ষতবিক্ষত করেছেন । আমি মাননীয় পুলিশ সুপার স্যারের কাছে এর-সুষ্ঠ তদন্ত এবং বিচার চাই।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

     এই ধরনের আরও খবর

ফেসবুক

পুরাতন খবর খুঁজুন