নারী নির্যাতন বন্ধে মোংলা থানা পুলিশের ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ – গ্রামীন নিউজ২৪

শেখ রাফসান বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ দেশব্যাপী ধর্ষণসহ নানা ভাবে নারী নির্যাতন বন্ধে ব্যতিক্রমী কর্মকাণ্ড শুরু করেছে মোংলা থানা পুলিশ। ওই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আজ (০৮ অক্টোবর) বৃহঃপতিবার সকালে মোংলার কয়েকটি কলেজের শিক্ষক -শিক্ষার্থীর সাথে নারী শিশু ধর্ষন ও নির্যাতন বন্ধে সচেতনতা মুলক সভা করে থানার অফিসার ইনচার্জ ইকবাল বাহার চৌধুরী। এ সময় উপস্থিত শিক্ষক শিক্ষার্থীরা গেল ০৩ অক্টোবর মোংলার মাকোড়োন এলাকায় ধর্ষনের শিকার হওয়া ৭ বছরের শিশুর মামলার বিষয়েও খোজ খবরনেন। উপস্থিত শিক্ষক- শিক্ষার্থীর কাছ থেকে নারী শিশু নির্যাতনের বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, ধর্ষনের শিকার ওই শিশুর ডাক্তারী পরিক্ষা সম্পর্ন হয়েছে। রিপোট পজেটিভ এসেছে। দ্রুত সময়ে মধ্য মামলার তদন্ত রিপোট আদালতে পাঠানো হবে। উল্লেখ্য গত ৩ অক্টোবর মোংলার নারকেলতলা আবাসনে ৭ বছরের শিশু ধর্ষনের শিকার হয়। ওই ঘটনার কিছুক্ষন পরেই পুলিশ ধর্ষক আঃ মান্নান(৫০) কে আটক করে মামলা দায়ের শেষে আদালতে প্রেরন করে পুলিশ।
এসময় মোংলা কলেজের প্রভাষক নিগার সুলতানা সুমি বলেন, কিছু মানুষের মনুষ্যত্ব হারিয়ে গেছে। তাই তারা দিন দিন হিংস্র হয়ে উঠছে। নারী শিশু নির্যাতন সহ নানা সমাজ বিরোধী কর্মকান্ড করছে মানুষরুপি নরপিচাশের দল। সমাজের সকল শ্রেনী পেশার মানুষদের এক হয়ে কাজ করার আহবান জানান তিনি।
এসময় ওসি ইকবাল বলেন, নারী শিশু নির্যাতন বন্ধে সব সময় সর্তক অবস্থানে থেকে কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ। তাই পুলিশের কর্মকান্ডে শিক্ষক শিক্ষার্থী সবাইকে সহায়তা করার আহবান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাভিশন টেলিভিশনের সাংবাদিক জসিম উদ্দিন,এনটিভির সাংবাদিক আবু হোসাইন সুমন,মোংলা কলেজের প্রভাষক নিগার সুলতানা সুমি,শিক্ষার্থী- শেখ সালমান রাজ,মাসুদ রানা,সাইফগল আহম্মেদ,মোঃ কাউসার,সাদিয়া আফরিন,সানজিদা স্বর্ণা,নাজিয়া আফরিন,স্নেহা ইসলাম অহনা।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

     এই ধরনের আরও খবর

ফেসবুক

পুরাতন খবর খুঁজুন